1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
বুধবার, ২৭ অক্টোবর ২০২১, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন

গত একমাসে সিলেটে করোনার সংক্রমন ও মৃত্যু হার বেশি

  • আপডেট সময় : রবিবার, ১ আগস্ট, ২০২১
  • ১০৯ বার পঠিত

ডেস্কঃ আপাতদৃষ্টিতে ৪৭৮ আর ৬৯৩ সংখ্যা দুটো নিরীহ। কিন্তু সংখ্যাগুলি যখন মৃত্যুকে কেন্দ্র করে উল্লেখ করা হয়, তখন আর সেগুলি নিরীহ থাকে না; হয়ে যায় বিরহের, বিষাদের। সংখ্যা দুটোর মধ্যে ২১৫-এর পার্থক্য। সিলেটে ঠিক এতোজন মানুষ এক মাসে করোনায় মারা গেছেন। জুলাইয়ের ১ তারিখ সকাল ৮টায় মৃতের যে সংখ্যা ছিল ৪৭৮, ৩১ তারিখ সকাল ৮টায় এসে সে সংখ্যা হয়েছে ৬৯৩!

দুনিয়ার বুকে করোনার তাণ্ডব শুরুর পর এই প্রথম সিলেট ভয়ঙ্কর এক মাস পার করেছে। যে মাসে সিলেটজুড়ে ২১৫ জনের মৃত্যুর সাথে সাথে অদৃশ্য ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন ১৩ হাজার ৪৭৫ জন! এক মাসে করোনায় এতো মৃত্যু, এতো সংক্রমণ আর কখনোই দেখেনি সিলেট।

স্বাস্থ্য অধিদফতর সিলেট বিভাগীয় কার্যালয় সূত্র জানিয়েছে, সদ্য গত হওয়া জুলাই মাসের ১ তারিখ সকাল ৮টা অবধি সিলেট বিভাগে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছিল ৪৭৮ জন। বিভাগের সিলেট জেলার ৩৯১ জন, সুনামগঞ্জের ৩৩ জন, মৌলভীবাজারের ৩৫ জন ও হবিগঞ্জ জেলার ১৯ জন মারা গিয়েছিলেন তখন অবধি।

ওই সময় পর্যন্ত বিভাগে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ছিল ২৫ হাজার ৯৮১ জন। সিলেটে ১৭ হাজার ১৯৪ জন, সুনামগঞ্জে ৩ হাজার ৬ জন, মৌলভীবাজারে ৩ হাজার ২৫ জন ও হবিগঞ্জে ২ হাজার ৭৫৬ জন আক্রান্ত হয়েছিলেন।

এর পরের এক মাস চারদিকে বিভীষিকা! হাহাকার! ক্রন্দন!

স্বাস্থ্য অধিদফতর বলছে, ৩১ জুলাই সকাল ৮টা অবধি সিলেট বিভাগের চার জেলায় করোনায় মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৯৩ জনে। তন্মধ্যে সিলেট জেলাতেই মারা গেছেন ৫৫৪ জন। বাকিদের মধ্যে সুনামগঞ্জের ৪৯ জন, মৌলভীবাজারের ৬০ জন ও হবিগঞ্জের ৩০ জন রয়েছেন।

এক মাসে সংক্রমণ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৯ হাজার ৪৫৬ জনে। এর মধ্যে সিলেট জেলাতেই সংক্রমণ ধরা পড়েছে ২৪ হাজার ৯৩৭ জনের মধ্যে। সুনামগঞ্জের ৪ হাজার ৬০৫ জন, মৌলভীবাজারের ৫ হাজার ৪১৯ জন ও হবিগঞ্জের ৪ হাজার ৪৯৫ জন করোনাক্রান্ত হয়েছেন।

পরিসংখ্যান বলছে, গেল এক মাসে সিলেট বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে সিলেট জেলায়। এখানে মারা গেছেন ১৬৩ জন। মৌলভীবাজারে ২৫ জন, সুনামগঞ্জে ১৫ জন ও হবিগঞ্জে ১১ জন মারা গেছেন।

সংক্রমণের দিক দিয়েও এগিয়ে সিলেট জেলা। জুলাই মাসে ৭ হাজার ৭৪৩ জন করোনার শিকারে পরিণত হয়েছেন এখানে। এছাড়া মৌলভীবাজারে ২ হাজার ৩৯৪ জন, হবিগঞ্জে ১ হাজার ৭৯৩ জন ও সুনামগঞ্জে ১ হাজার ৫৯৯ জন সংক্রমিত হয়েছেন।

জুলাই মাসে চব্বিশ ঘন্টায় সিলেট সর্বোচ্চ মৃত্যু দেখেছে দুবার, ২৮ ও ৩০ জুলাই মারা যান ১৭ জন করে। আর সর্বোচ্চ ৮০২ জন শনাক্ত হন ৩০ জুলাই।

এই ‘দুঃখগাথার’ মধ্যে স্বস্তিও আছে খানিকটা। গত হওয়া এক মাসে সিলেট বিভাগের ৬ হাজার ৮৬৬ জন মানুষ করোনা থেকে মুক্তি পেয়েছেন।

অন্যদিকে, এই এক মাসে করোনার ভ্যাক্সিন কার্যক্রমও গতি পেয়েছে সিলেটে। এখন প্রতিদিন শত শত মানুষকে টিকা প্রদান করা হচ্ছে। অগুনতি মানুষ টিকা পেতে নিবন্ধন করছেন।

সার্বিক বিষয়ে সিলেট বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, ‘জুলাই মাসটা আমাদের জন্য অনেক কঠিন ছিল। করোনার সবচেয়ে ভয়াবহ সময় আমরা পার করেছি। সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ, সবচেয়ে বেশি মৃত্যু সব দেখেছি আমরা এ মাসেই।’

তিনি বলেন, ‘আমাদেরকে আরও সচেতন হতে হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, মাস্ক পরিধান করা অবশ্যই কর্তব্য। সাথে টিকাও নিতে হবে। এখন তো দেশে টিকা আসছে নিয়মিত। সবার উচিত টিকা নেয়া। এতে করোনার ঝুঁকি কমে আসবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 sylheter kuj khobor.com
Theme Customized By BreakingNews