1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৫:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আট বছরে এসএসসি ও ১৭ বছরে এমবিবিএস পাস করেন-ডা.সাবরিনা আপনারা ঢাকা দখল করবেন, আমরা কি ললিপপ খাবো: ফখরুলকে কাদের মেসি আজ মাঠে নামলেই গড়বেন নতুন রেকর্ড বিএনপি নয়াপল্টনে জড়ো হলে পুলিশে এ্যাকশেনে যাবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিকাশ-রকেটে আনা যাবে বিদেশ থেকে রেমিট্যান্স লেপ কেন লাল কাপড়েই বানানো হয় সিলেট পাসপোর্ট অফিসের পরিচালক মাজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে মহিলাকে হয়রানি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে সাদা কাগজে সাক্ষর নেয়ার অভিযোগ বাংলাদেশ তাঁতীলীগ সিলেট সদর উপজেলা শাখার পূর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ঢাকায় আদালত থেকে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিকে ছিনিয়ে নিলো জঙ্গিরা এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান কে শুভেচ্ছা জানালো সিলেট জেলা তাঁতী লীগ-

জমির বিরোধে সিলেটের বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় গ্রেফতার ৬

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : বুধবার, ২৬ অক্টোবর, ২০২২
  • ৮৪ বার পঠিত
ফাইল ছবি

ডেস্কঃ জমির বিরোধে সিলেটের বিশ্বনাথে দু’পক্ষের সংঘর্ষে ছয়ফুল ইসলাম (২৮) নামের যুবক নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার (২৫ অক্টোবর) রাত সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বুধবার ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। থানায় দায়ের করা হয়েছে পাল্টাপাল্টি মামলা।

নিহত ছয়ফুল উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের চড়চন্ডি গ্রামের আব্দুল মান্নানের ছেলে। তিনি পেশায় সিএনজিচালিত অটোরিকশা চালক। ময়না তদন্ত শেষে তার লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ।

স্থানীয় ও পুলিশ সূত্র জানায়, চড়চন্ডি গ্রামের আব্দুল আজিজ মুন্সি ও নূরুল আমিন পক্ষের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে জায়গা নিয়ে বিরোধ চলছে। এরই জের ধরে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে উভয়পক্ষের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। এসময় গুরুতর আহত হন আব্দুল আজিজ মুন্সি পক্ষের ছয়ফুল ইসলাম। পরে তাঁকে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

সংঘর্ষকালে নারীসহ উভয়পক্ষের ৫ জন আহত হন। আহতরা হলেন- আব্দুল আজিজ মুন্সি পক্ষের কমরুন নেছা, বদরুল ইসলাম, ফখরুল ইসলাম এবং নূরুল আমিন পক্ষের নূরুল আমিন ও নূরুল ইসলাম।

এদিকে, আব্দুল আজিজ মুন্সি পক্ষের ছয়ফুল নিহতের ঘটনায় বুধবার তাঁর বাবা হাফিজ আব্দুল মান্নান প্রতিপক্ষের ৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা  (নং-১৪)  দায়ের করেছেন। মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- পৌর এলাকার চড়চন্ডি গ্রামের মৃত আব্দুল গফুরের ছেলে নূরুল আমিন ও নূরুল ইসলাম, নূরুল ইসলামের ছেলে সেবুল মিয়া এবং দৌলতপুর ইউনিয়নের আনরপুর গ্রামের আপ্তাব আলীর ছেলে সুন্দর আলী। অভিযুক্তদের মধ্যে থানাপুলিশ নূরুল আমিন, নূরুল ইসলাম ও সুন্দর আলীকে গ্রেপ্তার করেছে।

অপরদিকে, আব্দুল আজিজ মুন্সি পক্ষের ৫ জনের নাম উল্লেখ ও ৩ জনকে অজ্ঞাতনামা অভিযুক্ত করে নূরুল ইসলামের স্ত্রী আমিরুন নেছা মামলা (নং ১৫) দায়ের করেছেন। এ মামলায় অভিযুক্তরা হলেন- পৌর এলাকার চড়চন্ডি গ্রামের হাফিজ আব্দুল মান্নানের ছেলে (নিহত ছয়ফুলের ভাই) বদরুল ইসলাম, ফখরুল ইসলাম, আকবর আলীর ছেলে কদর আলী, আব্দুল লতিফের ছেলে হাফিজ আব্দুল মান্নান ও আব্দুল আজিজ মুন্সি। এদের মধ্য থেকে বদরুল ইসলাম, ফখরুল ইসলাম ও কদর আলীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিশ্বনাথ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গাজী আতাউর রহমান বুধবার বিকাল ৪টায় সিলেটভিউ-কে জানান- ময়না তদন্ত শেষে লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। মামলা দায়ের করা হয়েছে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে। মামলা করা হয়েছে অপরপক্ষ থেকেও। দু’পক্ষের ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এর মধ্যে ৩ জন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন, বাকি ৩ জনকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর










x