1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০৪:৪৩ অপরাহ্ন

টানা বৃষ্টি আর পাহাড়ি ঢলে সিলেট-সুনামগঞ্জের নিম্নাঞ্চল প্লাবিত

  • আপডেট সময় : বুধবার, ৩০ জুন, ২০২১
  • ১৫৯ বার পঠিত

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি:  সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার সীমান্তবর্তী ৩টি ইউনিয়নের প্রায় ১৫টি গ্রামের বেশিরভাগ ঘরবাড়ি পানির নিচে তলিয়ে গেছে। টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ি ঢলে সবচেয়ে বেশি বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ইসলামপুর পূর্ব ইউনিয়নের চাঁনপুর গ্রাম ও ইসলামপুর পশ্চিম ইউনিয়নের ছনবাড়ী গ্রাম। এরমধ্যে চাঁনপুর গ্রামের প্রায় ৫টি বাড়ি নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। এর আগে স্থানীয় মসজিদটিও ভেঙে পড়ে। এতে নদী ভাঙ্গনের প্রবল ঝুঁকিতে রয়েছে চাঁনপুর গ্রাম।

জানা যায়, উপজেলার ছনবাড়ী গ্রামের স্কুল, মসজিদ, মন্দির, রাস্তা, শাহ আরেফিন বাজারসহ পুরো গ্রাম বানের পানির নিচে তলিয়ে যায়। এছাড়া ইসলামপুর পশ্চিম ইউনিয়নের নতুন জালিয়ারপাড়, বৈশাকান্দি, লম্বাকান্দি, নভাগী, কান্দিসহ বেশ কয়েকটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান শাহ মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন ও চেয়ারম্যান বাবুল মিয়া নিজ নিজ এলাকার পানিবন্দি গ্রামগুলো পরিদর্শন করেন।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুমন আচার্য জানান, উপজেলার বন্যা পরিস্থিতি মোকাবিলায় আমাদের পর্যাপ্ত প্রস্তুতি রয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে বন্যার্তদের জন্য নগদ ১৫ লক্ষ টাকা মজুদ রয়েছে। এই টাকা দিয়ে আমরা শুকনো খাবার ক্রয় করে তাদের মাঝে বিতরণ করবো। শিশু খাদ্য ও গো-খাদ্য পর্যাপ্ত পরিমাণে আমাদের কাছে রয়েছে। এ ছাড়াও বন্যা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে যে কোন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

জৈন্তাপুর সংবাদদাতা জানান, দুই দিনের টানা বর্ষণ ও পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট বন্যায় জৈন্তাপুর উপজেলার নিম্নাঞ্চলগুলো প্লাবিত হয়েছে। সারী ও বড় নয়াগাং নদীর পানি বিপদসীমার .৫৯ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। মঙ্গলবার সরেজমিনে দেখা গেছে, টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে পানি বন্দি হয়ে পড়েছে নিজপাট, জৈন্তাপুর ও চারিকাটা ইউনিয়নের নিম্নাঞ্চলের মানুষ।

বন্যায় আটকে পড়া পরিবারের লোকজনকে নৌকা অথবা ভেলায় করে উঁচুস্থানে আশ্রয়ের জন্য ছুটতে দেখা যায়। বন্যায় পরিস্থিতি পরিদর্শন করেছেন জনপ্রতিনিধি এবং উপজেলা প্রশাসনের কর্তাব্যক্তিরা।

বন্যা কবলিত এলাকাগুলো হলো, মেঘলী, বন্দরহাটি, লামাপাড়া, ময়নাহাটি, মোরগাহাটি, জাঙ্গালহাটি, মজুমদারপাড়া, নয়াবাড়ী, হর্নি, বাইরাখেল, গোয়াবাড়ী, তিলকৈপাড়া, বড়খেল, ফুলবাড়ী, ডিবিরহাওর, ঘিলাতৈল, মাস্তিং, হেলিরাই, মুক্তাপুর, বিরাইমারা, বিরাইমারা হাওর, লামনীগ্রাম, কাটাখাল, খারুবিল, চাতলারপাড়, ডুলটিরপাড়, ১নং লক্ষীপুর, ২নং লক্ষীপুর, আমবাড়ী, ঝিঙ্গাবাড়ী, কাঠালবাড়ী, নলজুরী হাওর, বালিদাঁড়া, রামপ্রসাদ, থুবাং, বাউরভাগ উত্তর, বাউরভাগ দক্ষিণ।

উপজেলা চেয়ারম্যান কামাল আহমদ জানান, ২দিনের টানা বৃষ্টি ও পাহাড়ী ঢলে সৃষ্ট ফ্লাস বন্যায় নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়। বন্যা কবলিতদের সহায়তার জন্য স্থানীয় মন্ত্রী সহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নুসরাত আজমেরী হক জানান, বন্যায় প্লাবিত এলাকা সমুহের খোঁজ খবর রাখা হচ্ছে। ইউপি চেয়ারম্যান, সদস্য ও গ্রাম পুলিশদের বন্যার পরিস্থিতির পর্যবেক্ষণের জন্য সর্তক থাকতে বলা হয়েছে।

তাহিরপুর প্রতিনিধি :, সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় টানা বৃষ্টিতে পাহাড়ী ঢলে উপজেলার সীমান্তবর্তী যাদুকাটা নদীর পানি বিপদসীমার ১৮ সেন্টিমিটার উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। এতে করে উপজেলার বিভিন্ন নদীর পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে। পানিতে তাহিরপুর-সুনামগঞ্জ সড়ক যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। আনোয়ারপুর বাজার ব্রীজের সম্মুখে সড়কটি পাহাড়ী ঢলে পানিতে ডুবে গেছে।

অন্যদিকে একই সড়কের পার্শ্ববর্তী বিশ্বম্ভরপুর উপজেলা শক্তিয়ারখলা-দুর্গাপুর সড়কটি পানিতে ডুবে গেছে। এই দুটি অংশে এখন পাড়ি দিতে নৌকা ব্যবহার করছে মানুষজন। যান চলাচল বন্ধ থাকায় দুর্ভোগে শিকার হচ্ছে মানুষ।
এদিকে, সুনামগঞ্জ পানি উন্নয়ন বোর্ড মঙ্গলবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত রেকর্ড অনুযায়ী সুনামগঞ্জ জেলার সুরমা নদীর পানি সমতল বিপদসীমার ৪৫ সেন্টিমিটারের নিচ দিয়ে এবং যাদুকাটা নদীর পানি সমতল বিপদসীমার ১৮ সেন্টিমিটারের উপর দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। গত ২৪ ঘন্টায় লাউড়েরগড় ও সুনামগঞ্জে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ যথাক্রমে ১৮০ মিলিমিটার ও ১১৬ মিলিমিটার। আবহাওয়ার পূর্বাভাস অনুযায়ী ভারী বর্ষণের এ ধারা আগামী ৭২ ঘন্টা অব্যাহত থাকতে পারে। এর ফলে আগামী দু-একদিনের মধ্যে সুরমা নদীর পানি বিপদসীমা অতিক্রম করতে পারে। তাহিরপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান করুনা সিন্ধু চৌধুরী বাবুল জানান, টানা বৃষ্টিপাতে উপজেলার নদ নদী ও নিম্নাঞ্চলে পানি বৃদ্ধি পাচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 sylheter kuj khobor.com
Theme Customized By BreakingNews