1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২, ০৮:২৪ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
সিলেটে তিন ঘন্টা নগরবাসীকে ভূগিয়ে শ্রমিক অবরোধ প্রত্যাহার সিলেটে আয়ার সাথে ক্লিনিক মালিকের পরকিয়া থানায় মামলা আসামীরা পলাতক লালাবাজার ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগে অপপ্রচার করে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ সভা বিশ্বনাথে ৪ বছর বয়সে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ আগাম নির্বাচনী প্রচার নিয়ে তোলপাড় সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে সিলেট জেলা তাঁতী লীগের শোক প্রকাশ- এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান কে জেলা তাঁতী লীগের অভিনন্দন– দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হয়রানি ভুক্তভোগীদের অভিযোগের পাহাড় লালাবাজারে বাসিয়া নদীতে নতুন সেতু নির্মান দাবী বারবার উপেক্ষিত যৌতুকের মামলায় আগাম জামিন পেলেন ক্রিকেটার আল-আমিন টি২০ থেকে অবসর নিলেন মুশফিক

পুর্ব বিরোধের জেরে দেড় বছরের শিশুকে হত্যা

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৬ আগস্ট, ২০২২
  • ৪১ বার পঠিত

হবিগঞ্জের বাহুবলে মামলা মোকদ্দা নিয়ে বিরোধের জেরধরে দেড় বছরের শিশু তোহা আক্তারকে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে ২ কিশোরকে আটক করেছে।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার ফয়জাবাদ গ্রামের পার্শ্ববর্তী একটি লেবু বাগান থেকে শিশু তোহার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। এর পরপরই বিষয়টি নিয়ে তদন্তে নামে পুলিশ। আটক করা হয় ২ কিশোরকে।

 

শুক্রবার দুপুরে আটককৃতদের আদালতে প্রেরণ করা হয়। তারা হল, একই গ্রামের ফুল মিয়া পুত্র জুবায়েল আহমেদ ও আবুল হোসেনের পুত্র তারেক মিয়া।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাহুবল মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) প্রজিৎ কুমার দাস জানান, উপজেলার ৭নং ভাদেশ্বর ইউনিয়নের ফয়জাবাদ এলাকার মোঃ আব্দুল মতিন মিয়ার দেড় বছর বয়সী শিশু কন্যা তোহা আক্তার (২৪ আগস্ট) বুধবার সকাল ৮টার দিকে বাড়ির উঠানে খেলাধুলা করছিলো। তার কিছুক্ষণ পর থেকে তোহাকে খোঁজে পাচ্ছিল না পরিবারের সদস্যরা। পরে আশেপাশের বিভিন্ন স্থানে খোজাখুজি করেও কোন সন্ধান পাওয়া যায়নি। এক পর্যায়ে পরদিন বৃহস্পতিবার গ্রামের পার্শ্ববর্তী একটি লেবু বাগানে শিশু তোহার মরদেহ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছে মরদেহ উদ্ধার মর্গে প্রেরণ করে এবং বিভিন্ন আদালমত সংগ্রহ করে।

ইন্সপেক্টর (তদন্ত) প্রজিৎ কুমার দাস জানান, বৃহস্পতিবার রাতে নিহতের পিতা বাদী হয়ে একই গ্রামের ফুল মিয়াকে প্রধান আসামী করে ৪ জনের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

 

তিনি বলেন, নিহত শিশুর পিতা আব্দুল মতিন মিয়া ও ফুল মিয়ার মধ্যে দীর্ঘদিন যাবত বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে মামলা মোকদ্দমা চলে আসছিল। এরই জেরধরে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। তবে এর পেছনে আরো অন্য কোন কারণ আছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর










x