1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২২, ০৩:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
আট বছরে এসএসসি ও ১৭ বছরে এমবিবিএস পাস করেন-ডা.সাবরিনা আপনারা ঢাকা দখল করবেন, আমরা কি ললিপপ খাবো: ফখরুলকে কাদের মেসি আজ মাঠে নামলেই গড়বেন নতুন রেকর্ড বিএনপি নয়াপল্টনে জড়ো হলে পুলিশে এ্যাকশেনে যাবে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বিকাশ-রকেটে আনা যাবে বিদেশ থেকে রেমিট্যান্স লেপ কেন লাল কাপড়েই বানানো হয় সিলেট পাসপোর্ট অফিসের পরিচালক মাজহারুল ইসলামের বিরুদ্ধে মহিলাকে হয়রানি ও ভয়ভীতি দেখিয়ে সাদা কাগজে সাক্ষর নেয়ার অভিযোগ বাংলাদেশ তাঁতীলীগ সিলেট সদর উপজেলা শাখার পূর্নাঙ্গ কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে। ঢাকায় আদালত থেকে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত দুই আসামিকে ছিনিয়ে নিলো জঙ্গিরা এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান কে শুভেচ্ছা জানালো সিলেট জেলা তাঁতী লীগ-

ফেঞ্চুগঞ্জে পিয়নের দায়ের কোপে আশার ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজার খুন

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৮ জুলাই, ২০২২
  • ৯২ বার পঠিত

ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলায় এনজিও প্রতিষ্ঠান আশার ব্র্যাঞ্চ ম্যানেজার মো. আবুল কাশেম খুন হয়েছেন। অফিসের পিয়ন কাম বাবুর্চি ফজল আহমদের দায়ের এলোপাতাড়ি কোপে নির্মমভাবে খুন হন তিনি। 

খুন হওয়া মো. আবুল কাশেম হবিগঞ্জ জেলার চুনারুঘাট উপজেলার কবিলাশপুর গ্রামের মৃত আলহাজ্ব আব্দুর রহিমের পুত্র। ঘাতক পিয়ন সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার পিরেরচক গ্রামের মৃত শরীফ উদ্দিনের ছেলে ফজল আহমদ।
হত্যাকাণ্ডের ঘটনাটি ঘটেছে রোববার (১৭ জুলাই) সকাল ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে কোন এক সময়ে উপজেলার মাইজগাঁও ইউনিয়নের সারকারখানা পুরানবাজার ব্র্যাঞ্চ অফিসে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ফেঞ্চুগঞ্জ থানা পুলিশ, পিবিআই ও সিআইডি ঘটনাস্থলে অবস্থান করছেন। লাশের সুরতহাল রিপোর্ট ও ঘটনার মোটিভ উদঘাটনে কাজ করছেন তারা।

অফিসের সেকেন্ড ম্যানেজার মুহিবুল ইসলাম জানান, প্রতিদিনের ন্যায় আজ সকাল সাড়ে ৮টায় আমরা সবাই অফিসে যাই এবং সকাল সাড়ে ১০টায় ম্যানেজারের সাথে দিনের কাজের বিস্তারিত জেনে সবাই ফিল্ড ওয়ার্কে বের হই। এ সময় অফিসে ছিলেন ম্যানেজার মো. আবুল কাসেম ও পিয়ন ফজল আহমদ। ফজল অফিসে পিয়ন কাম বাবুর্চির দায়িত্বে ছিলেন। ম্যানেজার ও পিয়নের মধ্যে পূর্বে কোন বিষয়ে কোন মতানৈক্য দেখতে পাননি তিনি। এমনকি শনিবার ঈদের ছুটিকালীন সময়ে অফিসে অবস্থান করায় অবস্থান ভাতাও হাসিমুখে গ্রহণ করেন পিয়ন ফজল। হঠাৎ কেন খুনের মতো এমন ঘটনা ঘটলো এর কোন কারণ খোঁজে পাচ্ছেন না বলে জানালেন সেকেন্ড ম্যানেজার মুহিবুল।

এ ব্যাপারে ফেঞ্চুগঞ্জ থানার ওসি শাফায়েত হোসেন জানান, প্রাথমিক তদন্তে পিয়ন ফজল আহমদ প্রধান হত্যাকারীকে আটক করতে পুলিশের বিভিন্ন টিম মাঠে রয়েছে।

ম্যানেজারকে তাঁর অফিকক্ষে গাছ কাটার দা দিয়ে মাথায়, গাড়ে এবং ছোঁয়ালসহ বিভিন্ন স্থানে এলোপাতাড়িভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে হত্যাকান্ডে ব্যবহৃত দা।

তিনি আরো জানান, ম্যানেজারের ব্যবহৃত মোবাইল (০১৭৩০৩১৩৫০৮) নাম্বার থেকে সকাল ১০টা ৫৮ মিনিটে শেষ কথা হয়েছে সিলেটের এরিয়া ম্যানেজার আহমদ শরিফ ছাদির ব্যবহৃত মোবাইল (০১৭৩৬৬০৬৮১১) নাম্বারে।

স্থানীয়রা জানান, একজন ভালো এবং সামাজিক মানুষ ছিলেন ম্যানেজার মো. আবুল কাসেম। কারো সাথে কোন বিরোধ ছিল এমন খবর জানেন না তারা।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর










x