1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১১:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
২৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নতুন কমিটিকে  অভিনন্দন জানিয়েছেন জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে জেলা তাঁতী লীগের আনন্দ মিছিল সিলেটে তিন ঘন্টা নগরবাসীকে ভূগিয়ে শ্রমিক অবরোধ প্রত্যাহার সিলেটে আয়ার সাথে ক্লিনিক মালিকের পরকিয়া থানায় মামলা আসামীরা পলাতক লালাবাজার ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগে অপপ্রচার করে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ সভা বিশ্বনাথে ৪ বছর বয়সে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ আগাম নির্বাচনী প্রচার নিয়ে তোলপাড় সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে সিলেট জেলা তাঁতী লীগের শোক প্রকাশ- এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান কে জেলা তাঁতী লীগের অভিনন্দন– দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হয়রানি ভুক্তভোগীদের অভিযোগের পাহাড় লালাবাজারে বাসিয়া নদীতে নতুন সেতু নির্মান দাবী বারবার উপেক্ষিত

বগুরায় মা’কে পিটিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দিল ছেলেরা

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : শনিবার, ৯ এপ্রিল, ২০২২
  • ৮২ বার পঠিত
মা গুলজান বানু (৮০) কে মারপিট করে বাড়ি থেকে বের করে দেয় ছেলেরা। বিষয়টি সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সমর কুমার পালকে জানানো হলে তিনি নির্যাতনের স্বীকার গুলজানকে নিজ গাড়িতে করে নিয়ে যান তার সরকারি বাসভবনে।

গত বুধবার রাতে মা গুলজান বানু  কে মারপিট করে বাড়ি থেকে  বের করে দেয় ছেলেরা পরে শুক্রবার রাতে তাকে বগুড়া শহরের  তাজমা সিরামিক ফ্যাক্টরির সামনে সড়কের পাশ থেকে উদ্ধার করেন স্থানীয়রা। কর্মক্ষম তিন ছেলে হজরত, হোসেন, মোহাম্মদের সাথে নিজ বাড়ি গাবতলি উপজেলার তিওর গ্রামে থাকতেন গুলজান বিবি।

বিয়ে দিয়েছেন এক মেয়েকে। দিন মজুর স্বামী আর তিনি অভাব-সংকটে কষ্ট করে বড় করেছেন সন্তানদের। ছেলেদেরো হয়েছে সংসার।  গুলজান জানান, স্বামীর মৃত্যুর পর থেকেই ছেলেরা তাকে ঠিকমতো খেতে দিতো না। অসুখ-বিসুখে তিনি পাননি কোন চিকিৎসা।  জীবন বাঁচাতে তাই বেশ কিছুদিন ধরেই ভিক্ষাবৃত্তি করে নিজের আহার গোছাতে হতো। কিন্তু মায়ের ভিক্ষাবৃত্তি পছন্দ নয় ছেলেদের। তাই, প্রায়ই শারীরিকভাবেও আঘাত করতো তারা।  সবশেষে দু’দিন আগে দুই ছেলে তাদের  মাকে পিটিয়ে বাড়ি থেকে বের করে দিলে রাস্তায় রাস্তায় দিন কাটছে গুলজানের।

গাবতলি থেকে তিনি বগুড়ার শহরের কলোনী এলাকার তাজমা সিরামিক ফ্যাক্টারির সামনে এক যাত্রী ছাউনিতে অবস্থান করছে বৃহস্পতিবার থেকে।  সেখানেই শুক্রবার রাতে  জরাজীর্ণ এক ব্যাগে কাপড়চোপড় সহ তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা বগুড়া সদরের ইউএনও কে খবর দিলে তিনি ছুটে আসেন।  পরে বিস্তারিত শুনে, গুলজান বানুকে বাড়ি ফিরতে চান কিনা জিজ্ঞেস করলে ‘কান্না জড়ত
গলায় তিনি বলেন, ‘ছেলেদের ভয় লাগে’।

এ অবস্থায়, ইউএনও সমর কুমার পাল রাত সাড়ে এগারোটা নাগাদ তাকে গাড়িতে তুলে নিয়ে যান সদর উপজেলা পরিষদে তার বাসভবনে।  তিনি জানান, বৃদ্ধা মায়ের শরীরে মারপিটের ক্ষত আছে। তার প্রাথমিক চিকিৎসা, খাবার এবং রাতে থাকার ব্যবস্থা করা হবে।  শনিবার চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী পরবর্তী স্বাস্থ্য পরীক্ষা এবং সরকারি ব্যবস্থাপনায় থাকা-খাওয়ার ব্যবস্থার কথাও বলেন ইউএনও।
এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে স্থানীয়রা গুলজান বানুর ছেলেদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর










x