1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
২৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নতুন কমিটিকে  অভিনন্দন জানিয়েছেন জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে জেলা তাঁতী লীগের আনন্দ মিছিল সিলেটে তিন ঘন্টা নগরবাসীকে ভূগিয়ে শ্রমিক অবরোধ প্রত্যাহার সিলেটে আয়ার সাথে ক্লিনিক মালিকের পরকিয়া থানায় মামলা আসামীরা পলাতক লালাবাজার ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগে অপপ্রচার করে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ সভা বিশ্বনাথে ৪ বছর বয়সে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ আগাম নির্বাচনী প্রচার নিয়ে তোলপাড় সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে সিলেট জেলা তাঁতী লীগের শোক প্রকাশ- এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান কে জেলা তাঁতী লীগের অভিনন্দন– দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হয়রানি ভুক্তভোগীদের অভিযোগের পাহাড় লালাবাজারে বাসিয়া নদীতে নতুন সেতু নির্মান দাবী বারবার উপেক্ষিত

বাবাকে খুন করতে ঢাকা থেকে ছুরি নিয়ে যায় জলিল

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ৫ এপ্রিল, ২০২২
  • ১৪৭ বার পঠিত
কুড়িগ্রামের রাজারহাটে বাবাকে ছুরিকাঘাতে হত্যার ঘটনায় ছেলে আব্দুল জলিলকে (২৬) গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তার দেওয়া তথ্যে বাড়ির পাশের ধানক্ষেত থেকে হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত ছুরিটি জব্দ করা হয়েছে। বাবাকে খুনের পরিকল্পনা করে ঢাকা থেকে ছুরিটি নিয়ে যায় জলিল।

মঙ্গলবার সকালে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও রাজারহাট থানার উপপরিদর্শক অনীল কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে আব্দুল জলিলকে উপজেলার ঘড়িয়ালডাঙ্গা ইউনিয়নের খিতাবখা সলিমবাজার এলাকার নজরুলের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি ওই বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, প্রথম দুই স্ত্রী ডিভোর্স দিয়ে চলে গেলে তৃতীয় বিয়ে করেন পয়ার উদ্দিনের ছেলে আব্দুল জলিল। তার নির্যাতন সইতে না পেরে তিন মাস আগে নির্যাতন ও যৌতুক মামলা দিয়ে তৃতীয় স্ত্রীও চলে যান। জলিলের বাবা পয়ার উদ্দিন ও মা জুলেখা বেগমও মামলার আসামি ছিলেন। তারা জামিন নিলেও ছেলে জলিলের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেন আদালত।

গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থেকে বাঁচতে তৃতীয় স্ত্রীর করা মামলা মীমাংসার চেষ্টা করছিলেন জলিল। এজন্য টাকার দরকার হওয়ায় বাবা পয়ার উদ্দিনকে টাকার জন্য চাপ দিচ্ছিল সে। রোববার  ইফতারির পর টাকা চাওয়া নিয়ে বাবা-ছেলের বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে ধারালো ছুরি দিয়ে বাবা পয়ার উদ্দিনকে উপর্যুপরি আঘাত করলে রক্তাক্ত হয়ে লুটিয়ে পড়েন পয়ার উদ্দিন। এ সময় স্বামীকে বাঁচাতে গিয়ে অস্ত্রের আঘাতে আহত হন স্ত্রী জুলেখা বেগমও। ঘটনার পরই পালিয়ে যায় ছেলে জলিল।

রাতে গুরুতর আহত পয়ার উদ্দিনকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মাথায় ও বাম হাতে আঘাতপ্রাপ্ত জুলেখাকে চিকিৎসা দেওয়া হয়। ওই রাতেই রাজারহাট থানায় ছেলের বিরুদ্ধে হত্যাচেষ্টার মামলা করেন মা জুলেখা। পরদিন সোমবার দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

রাজারহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাজু সরকার জানান, জলিলের মা জুলেখা বেগম বাদী হয়ে মামলা করেছেন। মামলার একমাত্র আসামি ছেলেকে সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে এলাকার একটি বাড়িতে আত্মগোপনে ছিল। আজ দুপুরে তাকে আদালতে পাঠানো হবে।




Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর










x