1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৭:২৭ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দক্ষিণ সুরমায় গরু ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক ছাত্রলীগ নেতাসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দক্ষিণ সুরমা উপজেলা প্রেসক্লাবের ২০২৪/২৬ মেয়াদের কমিটি ঘোষনা সভাপতি ফুলর সাধারণ সম্পাদক নুরুল ৬ষ্ঠ উপজেলা নির্বাচনঃ দক্ষিণ সুরমায় ত্রিমুখী লড়াইয়ের আভাস জালালাবাদ থানা রিকশা ও রিকশাভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের মে দিবস পালন দক্ষিণ সুরমা রেস্তোরা মালিক সমিতি’র জরুরী সভা অনুষ্ঠিত গরম থেকে বাঁচতে ট্রাফিক পুলিশদের এসি হেলমেট দিলো পশ্চিমবঙ্গ সরকার দক্ষিণ সুরমা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভায় শ্রমিকদের যথাযথ মুল্যায়নের দাবী দক্ষিণ সুরমা উপজেলা নির্বাচনে প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে জুয়েল আহমদ যারা কথায় কথায় স্যাংশনস দেয় তারা ঘরে ঢুকে মানুষ হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্রকে উদ্দেশ্য করে শেখ হাসিনা সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কর্মচারীর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা

বিশ্বনাথে ইউপি মেম্বার সহ ৪ জনকে জেলহাজতে প্রেরণ

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : বৃহস্পতিবার, ২৫ মে, ২০২৩
  • ১১৭ বার পঠিত

ডেস্ক: প্রতিপক্ষের উপর হামলার অভিযোগে সিলেটের বিশ্বনাথ থানায় দায়ের করা মামলায় উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়ন পরিষদের ৬নং ওয়ার্ডের মেম্বার আনোয়ার হোসেন ধন মিয়াসহ ৪ জনকে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আনোয়ার হোসেন ধন মিয়া দৌলতপুর ইউনিয়নের উত্তর দৌলতপুর গ্রামের মৃত ইমান আলীর পুত্র। আদালতের নির্দেশে জেলহাজতে প্রেরনকারী অন্যান্যরা হলেন- উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের উত্তর দৌলতপুর গ্রামের মৃত মোহাম্মদ আলীর পুত্র আলা মিয়া (৪০), মৃত ছনুফর আলীর পুত্র কুতুব আলী (৩৫) ও আব্দুছ ছত্তারের পুত্র শফিক মিয়া (৪০)। উচ্চ আদালতের নির্দেশে বৃহস্পতিবার (২৫ মে) সিলেট জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মামলার ৮ জন অভিযুক্ত জামিন আবেদন করলে তাদের মধ্যে ৪ জনের আবেদন মঞ্জুর করেন এবং অপর ৪ জনের আবেদন না মঞ্জুর করে তাদেরকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন আদালত।

আনোয়ার হোসেন ধন মিয়াসহ ৪ জনকে জেলহাজতে প্রেরণের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বাদী পক্ষের আইনজীবি আতিকুর রহমান। তিনি জানান, উত্তর দৌলতপুর গ্রামের আনোয়ার হোসেন ধন মিয়ার পক্ষের লোকজনদের সাথে জায়গা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে একই গ্রামের মৃত হাজী আব্দল লতিফের পুত্র মোস্তফা মিয়া পক্ষের।

আর ওই বিরোধকে কেন্দ্র করে গত ১৪ এপ্রিল বিকেলে প্রতিপক্ষের হামলায় মোস্তফা মিয়াসহ তার পক্ষের ৮ জন আহত হন। ঘটনার পরদিন প্রতিপক্ষের আনোয়ার হোসেন ধন মিয়া মেম্বারসহ ১৯ জনকে অভিযুক্ত করে বিশ্বনাথ থানায় একটি মামলা (নাম্বার ১৩) দায়ের করেন মোস্তফা মিয়া।

এরপর উচ্চ আদালত থেকে ৬ সপ্তাহের জামিন পান অভিযুক্তরা। প্রসঙ্গত, মারামারির ঘটনার পরদিন বিশ্বনাথ থানায় মোস্তফা মিয়া মামলা দায়ের করলে প্রতিপক্ষের কুতুব আলী বাদী হয়ে একই ঘটনায় মোস্তফা মিয়াসহ ৭ জনকে অভিযুক্ত করে সিলেটের সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ৩য় আদালতে একটি সিআর মামলা (নাম্বার ১৮৪/২০২৩ইং)। কিন্ত আদালতে দাখিল করা ৪ ভিকটিমের মেডিকেল রিপোর্টের কোন সত্যতা পাওয়া যায়নি উল্লেখ করে গত ২৫ মে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেন বিশ্বনাথ থানার এসআই মো. কবির উদ্দিন।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর










x