1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
২৬নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের নতুন কমিটিকে  অভিনন্দন জানিয়েছেন জেলা তাঁতী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনে জেলা তাঁতী লীগের আনন্দ মিছিল সিলেটে তিন ঘন্টা নগরবাসীকে ভূগিয়ে শ্রমিক অবরোধ প্রত্যাহার সিলেটে আয়ার সাথে ক্লিনিক মালিকের পরকিয়া থানায় মামলা আসামীরা পলাতক লালাবাজার ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগে অপপ্রচার করে ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ সভা বিশ্বনাথে ৪ বছর বয়সে ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা’ আগাম নির্বাচনী প্রচার নিয়ে তোলপাড় সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর মৃত্যুতে সিলেট জেলা তাঁতী লীগের শোক প্রকাশ- এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান কে জেলা তাঁতী লীগের অভিনন্দন– দক্ষিণ সুরমা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হয়রানি ভুক্তভোগীদের অভিযোগের পাহাড় লালাবাজারে বাসিয়া নদীতে নতুন সেতু নির্মান দাবী বারবার উপেক্ষিত

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে সিলেট জেলা তাঁতী লীগের অভিনন্দন

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : রবিবার, ৩ এপ্রিল, ২০২২
  • ২৩৪ বার পঠিত

সিলেটবাসীর দীর্ঘদিনের স্বপ্ন কুমারগাঁও- বাদাঘাট-এয়ারপোর্ট চার লেন বাইপাস সড়কের টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সফল রাষ্ট্রনায়ক জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং সিলেট-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ. কে আব্দুল মোমেন মহোদয়কে সিলেট জেলার সর্বস্তরের জনগণের পক্ষ থেকে আন্তরিক অভিনন্দন, ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন সিলেট জেলা তাতী লীগের নেতৃবৃন্দ।

আজ রবিবার (০৩ এপ্রিল ২০২২) এক বার্তায়, সিলেট জেলা তাতী লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সুজন দেবনাথ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্রমন্ত্রীর প্রতি আন্তরিক অভিনন্দন, ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

অভিনন্দন বার্তায় নেতৃবৃন্দ বলেন, প্রায় ১২ কিলোমিটার দীর্ঘ কুমারগাঁও-বাদাঘাট- এয়ারপোর্ট চার লেন বাইপাস সড়কের টেন্ডার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ায় সিলেটবাসী আজ অত্যন্ত আনন্দিত। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এই অবদানের কথা এই জনপদের মানুষ আজীবন স্মরণ রাখবে।

তারা আরো বলেন, এই সড়কের উন্নয়ন কাজ শেষ হলে যাতায়াতের ক্ষেত্রে অত্র এলাকায় এক নতুন দিগন্তের উন্মোচন হবে এবং অত্র এলাকার জনগণসহ সিলেটবাসী যাতায়াতের ক্ষেত্রে যানজটমুক্ত সড়ক যোগাযোগ সুবিধা উপভোগ করবে। এই সড়কের উন্নয়ন সিলেটের পর্যটন শিল্পের উন্নয়নেও গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। কোম্পানীগঞ্জের ভোলাগঞ্জ থেকে আসা পাথর, চুনাপাথর ও বালুবাহী ট্রাক শহরে প্রবেশের কারণে যে অসহনীয় যানযট সৃষ্ট হতো, তা থেকেও সিলেট শহর অনেকটা মুক্ত হবে। এছাড়াও শহরের ভেতর দিয়ে পণ্যবাহী ট্রাক চলাচলের কারণে সাম্প্রতিক সময়ে শহরে সড়ক দুর্ঘটনায় অকালে অনেকের প্রাণ গেছে। এই দুর্ঘটনা থেকেও নগরবাসী ভবিষ্যতে নিরাপদে থাকতে পারবে। সড়কটি বাস্তবায়িত হলে অন্যান্য জেলার সাথে সিলেটের একটা যুগোপযোগী সড়ক নেটওয়ার্ক গড়ে উঠবে। এই বাইপাস সড়কের উন্নয়ন প্রকল্প অর্থনীতিতেও গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে বলে নেতৃবৃন্দ আশা ব্যক্ত করেন।




Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরও খবর










x