1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
বুধবার, ০১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩, ০৭:৫৮ পূর্বাহ্ন

সিলেটের কানাইঘাট গাছের ডাল পড়ে মৃত্যু, পরিবারের দাবি হত্যা

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : সোমবার, ১৬ জানুয়ারি, ২০২৩
  • ২৭ বার পঠিত

ডেস্কঃ সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার সাতবাঁক ইউনিয়নের জুলাই (মাঝরচটি) গ্রামে গাছ কাটার সময় ডাল পড়ে আহত ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তবে পরিবারের দাবি- এটি হত্যাকাণ্ড।

গত শুক্রবার (১৩ জানুয়ারি) আব্দুল হাফিজ কুটন (৫৩) নামের ওই ব্যক্তি ডাল পড়ে আহত হন। তিনি ওই গ্রামের মৃত আছদ রাজার ছেলে।

এদিকে, স্বজনদের দাবির পরিপ্রেক্ষিত্রে গত শনিবার (১৪ জানুয়ারি) বিকেলে গাছ কর্তনকারী পৌরসভার বায়মপুর বদিকোনা গ্রামের ফয়জুর রহমানের ছেলে আশিক উদ্দিন (২৭), একই গ্রামের মৃত আছদ রাজার ছেলে আলা উদ্দিন (৫০) ও লক্ষীপ্রসাদ পূর্ব ইউনিয়নের ভাল্লুকমারা গ্রামের বাবুল উদ্দেনের ছেলে সুহেল আহমদকে (২৯) আটক করেছে পুলিশ।

পরবর্তীতে এ তিনজনকে দায়ী করে নিহতের ভাই হামিদুল হক বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে মামলা রেকর্ড করে তাদের গ্রেফতার দেখায়। সোমবার (১৬ জানুয়ারি) তাদের আদালতে প্রেরণ করলে বিচারক এ তিনজনকে কারাগারে প্রেরণ করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বায়মপুর বদিকোনা গ্রামের গাছ ব্যবসায়ী মাওলানা হাবিব আহমদ জুলাই (মাঝরচটি) গ্রামের আব্দুল হাফিজ কুটনের কাছ থেকে তার একটি বাড়ির ১০টি গাছ ক্রয় করেন। এসব গাছ কাটার জন্য গত শুক্রবার সকালে ব্যবসায়ী হাবিব আহমদ লোক নিয়ে ওই বাড়িতে যান। গাছ কাটার একপর্যায়ে দুপুর সোয়া ১২টার দিকে দিনমজুর আশিক উদ্দিন একটি গাছের ডাল কেটে নিচে ফেললে ডালটি হাফিজ আহমদ কুটনের মাথায় পড়ে। এসময় গাছ কর্তনকারী শ্রমিক আলা উদ্দিন, আশিক উদ্দিন ও সুহেল আহমদ গুরুতর আহত অবস্থায় কুটনকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। তবে কুটনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। ওসমানীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার বিকেলের দিকে মারা যান আব্দুল হাফিজ কুটন।

 

তবে গাছ কর্তনকারী গ্রেফতারকৃত তিন দিনমজুরের স্বজনরা জানান, বদিকোনা গ্রামের গাছ ব্যবসায়ী হাবিব আহমদ দিনমজুর হিসেবে তাদেরকে গাছ কাটার জন্য নিয়ে যান। সেখানে গাছ কাটার সময় হঠাৎ করে আব্দুল হাফিজ কুটন গাছের নিচে চলে আসলে গাছের কাটা ডালের অংশ পড়ে আব্দুল হাফিজ কুটন মাথায় আঘাতপ্রাপ্ত হন। ইচ্ছাকৃতভাবে তারা এ ঘটনা ঘটাননি। তারা দিনমজুরি করে জীবিকা নির্বাহ করেন। কিন্তু তাদেরকে অহেতুক নিহতের পরিবারের লোকজন দায়ী করছেন।

এ ব্যাপারে থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তাজুল ইসলাম পিপিএম বলেন, গাছের ডালের কাটা টুকরো পড়ে আব্দুল হাফিজ কুটনের মৃত্যু হতে পারে। নিহতের পরিবার তাকে হত্যা করা হয়েছে উল্লেখ করেন থানায় অভিযোগ দেয়ার পর গাছ কর্তনকারী তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত হচ্ছে।

তিনি বলেন- ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে আব্দুল হাফিজ কুটন কীভাবে মারা গেছেন সেটি জানা যাবে




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর










x