1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
সোমবার, ২০ মে ২০২৪, ০৭:০২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
দক্ষিণ সুরমায় গরু ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক ছাত্রলীগ নেতাসহ ৮ জনের বিরুদ্ধে মামলা দক্ষিণ সুরমা উপজেলা প্রেসক্লাবের ২০২৪/২৬ মেয়াদের কমিটি ঘোষনা সভাপতি ফুলর সাধারণ সম্পাদক নুরুল ৬ষ্ঠ উপজেলা নির্বাচনঃ দক্ষিণ সুরমায় ত্রিমুখী লড়াইয়ের আভাস জালালাবাদ থানা রিকশা ও রিকশাভ্যান শ্রমিক ইউনিয়নের মে দিবস পালন দক্ষিণ সুরমা রেস্তোরা মালিক সমিতি’র জরুরী সভা অনুষ্ঠিত গরম থেকে বাঁচতে ট্রাফিক পুলিশদের এসি হেলমেট দিলো পশ্চিমবঙ্গ সরকার দক্ষিণ সুরমা উপজেলা প্রেসক্লাবের সভায় শ্রমিকদের যথাযথ মুল্যায়নের দাবী দক্ষিণ সুরমা উপজেলা নির্বাচনে প্রচার প্রচারণায় এগিয়ে জুয়েল আহমদ যারা কথায় কথায় স্যাংশনস দেয় তারা ঘরে ঢুকে মানুষ হত্যা করে যুক্তরাষ্ট্রকে উদ্দেশ্য করে শেখ হাসিনা সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কর্মচারীর ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা

সিলেটে মৃত গরুর মাংস বিক্রির দায়ে ব্যবসায়ীকে জেল

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২৩
  • ৯৯ বার পঠিত

ডেস্ক: সিলেটের কানাইঘাট উপজেলার বড়চতুল ইউনিয়নের চতুল-ঈদগাহ বাজারে মৃত গরুর মাংস বিক্রি করার অপরাধে এক ব্যবসায়ীকে জেল ও জরিমানা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) সকাল দশটায় উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও ১ম শ্রেণির ম্যাজিস্ট্রেট ফয়সাল আহমেদ চতুল ঈদগাহ বাজারে গিয়ে মৃত গরুর মাংস বিক্রির অপরাধে স্থানীয় মুক্তাপুর গ্রামের ফকির আলীর পুত্র ফখরুল ইসলামকে আটক করেন। পরবর্তীতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনের ৫২ ধারায় মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে মামলা দায়েরের মাধ্যমে তাকে ২ মাসের কারাদন্ড ও নগদ ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

জানা যায়, মোবাইল কোর্টে সাজাপ্রাপ্ত ফখরুল ইসলাম চতুল ঈদগাহ বাজারের একজন মাংস ব্যবসায়ী। বাজার ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দসহ স্থানীয় আরো অনেকে জানান, বৃহস্পতিবার সকাল ৭টায় ফখরুল ইসলাম তার আরও ২ সহযোগীকে নিয়ে বাজারে গরুর মাংস বিক্রি করতে থাকেন। অনেকে মাংস বাড়িতে নিয়ে গেলে পঁচা দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে বিষয়টি তাৎক্ষণিক লোকজন বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি নুরুল আম্বিয়াসহ নেতৃবৃন্দকে জানান। তারা সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বাজারে এসে দেখতে পান মাংস থেকে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদকালে মাংস ব্যবসায়ী ফখরুল ইসলাম স্বীকার করে, স্থানীয় রায়পুর গ্রামের মৃত নুরুল হকের পুত্র নাজিম উদ্দিনসহ আব্দুল বাছিত ও আব্দুল হামিদকে ১৫’শ টাকা পারিশ্রমিকের বিনিময়ে মৃত গরুর মাংস বিক্রি করতে বলেছে।

বিষয়টি উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ফয়সাল আহমেদ জানতে পেরে উপজেলা ফুড ইন্সপেক্টর আবুল কালাম আজাদ, থানা পুলিশ ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের কর্মকর্তা জসিম উদ্দিনকে নিয়ে চতুল ঈদগাহ বাজারে যান। প্রাণিসম্পদ হাসপাতালের কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন মাংস পরীক্ষা করে মৃত গরুর পঁচা মাংস হিসেবে সনাক্ত করেন।

তখন মৃত গরুর পঁচা মাংস জব্দ করে পরবর্তীতে বাজারের পাশে মাটির গর্তে আগুনে পুড়িয়ে ফেলেন এ্যাসিল্যান্ড ফয়সাল আহমেদ।

এ সময় মৃত গরুর মাংস বিক্রির বিষয়টি মাংস ব্যবসায়ী ফখরুল ইসলাম স্বীকার করলে মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাকে এ সাজা ও জরিমানা দেন ভূমি কর্মকর্তা ফয়সাল আহমেদ। সাজাপ্রাপ্ত ফখরুল ইসলামকে থানা পুলিশের মাধ্যমে সিলেট জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর










x