1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০১:৩৭ অপরাহ্ন

সিলেট ক্রিকেটে যুক্ত হচ্ছে দুই স্টেডিয়াম এক ডরমিটরি

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : রবিবার, ১০ মার্চ, ২০২৪
  • ১১৯ বার পঠিত

ডেস্ক: সিলেট ক্রিকেটে যুক্ত হচ্ছে দুই স্টেডিয়াম এক ডরমিটরি। সম্প্রতি জাতীয় একটি গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলে এ তথ্য জানিয়েছেন সিলেট বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক ও বিসিবি পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল।

খুব দ্রুতই কাজ শুরু হতে যাচ্ছে নতুন দু’টি স্টেডিয়ামের। এর মধ্যে একটি প্রি-পেইড প্র্যাকটিস মাঠ তৈরি হবে লাক্কাতুরা স্টেডিয়ামের কাছে। এবার জানা গেল সিলেট বিভাগীয় স্টেডিয়ামের জন্য এরই মধ্যে পাওয়া গেছে জায়গা। সবকিছু ঠিক থাকলে সেটিরও কাজ শুরু হবে শিগগিরই। বিসিবি পরিচালক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল বলেন, ‘মাঠ বৃদ্ধিতে আমরা গুরুত্ব দিচ্ছি। সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক, মেয়র সহ সবাই সহযোগিতা করছেন।

সিলেটে যে মাঠের স্বল্পতা রয়েছে, আমরা চেষ্টা করছি সিলেটে একটি বিভাগীয় স্টেডিয়াম করার। এরই মধ্যে আমরা একটি জায়গাও নির্র্ধারণ করেছি। যেখানে যোগাযোগ ব্যবস্থাও খুব ভালো। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুসারে আমরা কোনো কৃষি জমিতে স্টেডিয়াম করবো না।’

সিলেটে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে হবিগঞ্জের সন্তান জাকের আলী তুলেছিলেন ব্যাটিং ঝড়। নিজের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের অভিষেকেই মাত্র ৩৪ বলে তিনি খেলেছেন ৬৮ রানের দারুণ এক ইনিংস। তার ব্যাটে চড়ে ২০৭ রান তাড়া করে মাত্র ৩ রানের জন্য হেরে যায় টাইগাররা। সিলেটের আরেক পেসার ইবাদত হোসন চৌধুরী, সৈয়দ খালেদ আহমেদরা খেলছেন জাতীয় দলে।

নাদেল বিশ্বাস করেন এখানে মাঠের সংখ্যা যত বাড়বে ততো জাকেরদের মতো তরুণ ক্রিকেটাররা নিজেদের জায়গা করবে টাইগার শিবিরে। তিনি বলেন, ‘আমরা এখানে ক্রিকেট অবকাঠামো  তৈরিতে মন দিচ্ছি। যত সুযোগ-সুবিধা বাড়বে ততোই জাকেরদের মতো প্রতিভবান ক্রিকেটাররা সিলেট থেকে জাতীয় দলের পাইপলাইনে যুক্ত হতে পারবে। এটি শুধু সিলেটেই নয়, দেশের অন্য বিভাগগুলোও যদি সুযোগ- সুবিধা বাড়ায় তাহলে ক্রিকেটার তৈরি হবেই।’

অন্যদিকে সিলেট মাঠের গ্রিন গ্যালারির পিছনেই তৈরি হবে আরেকটি প্রিপেইড স্টেডিয়াম। এই নিয়ে প্রায় দুই বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছে বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা। নাদেল বলেন, ‘আমরা প্রি- পেইড স্টেডিয়ামটির কাজও দ্রুত শুরু করবো। এখানে জায়গা বরাদ্দের পুরো দায়িত্ব জেলা প্রশাসকের হাতে। তিনি আমাদের ভীষণ সাহায্য করছেন। আগেই জানিয়েছিলাম এখানে অনেকগুলো উইকেট থাকবে। থাকবে ছোট ছোট ড্রেসিং রুম। বিশেষ করে প্র্যাকটিসের মাঠের যে অভাব সেটি আমরা পূরণ করবো।  কোনো ক্লাব বা বিপিএল’র দল চাইলে এখানে ভাড়া নিয়ে অনুশীলন সুবিধা পাবে। আমরা এটির কাজ আশা করি দ্রুত শুরু করতে পারবো।’

অন্যদিকে স্টেডিয়ামের পাশেই বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) তৈরি করবে ক্রিকেটারদের জন্য একটি ডরমিটরি। এখানে ক্রিকেটাররা থাকতে পারবে। নাদেল জানিয়েছেন এরই মধ্যে ডরমিটরির নকশা চূড়ান্ত করেছে বিসিবি। এতে করে এর কাজ শুরু করা সময়ের ব্যাপার। তিনি বলেন, ‘বিসিবি এখানে একটি ডরমিটরি করাবে। সেটির নকশা চূড়ান্ত করা হয়েছে। আশা করি এর কাজ শুরু করতে আমাদের সময় লাগবে না।’

ঈদের পরই শুরু সিলেট অঞ্চলিক ক্রিকেট সংস্থার কার্যক্রম

ঢাকার বাইরে ক্রিকেটকে ছড়িয়ে দিতে স্থানীয় ক্রিকেটকে করার লক্ষ্যে শক্তিশালী করতে দীর্ঘদিন থেকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) আঞ্চলিক ক্রিকেট কমিটি গঠনের অনুমোদন দিয়েছে অনেক আগেই। এরই মধ্যে চট্টগ্রাম বিভাগ তাদের আঞ্চলিক ক্রিকেট সংস্থার কাজ শুরু করলেও সিলেট পিছিয়ে আছে অনেকটাই। অথচ সবার আগে তারাই এই বিভাগই একামেডির জন্য রুম ভাড়া করে কাজ শুরু করেছিল। সিলেট আঞ্চলিক ক্রিকেট সংস্থার আহ্বায়ক শফিউল আলম চৌধুরী নাদেল জানিয়েছেন আগামী ঈদের পরই তারা কাজ শুরু করবেন। তিনি বলেন, ‘আমরা অঞ্চলিক ক্রিকেট সংস্থা কাজগুলো অনেকটাই গুছিয়ে এনেছি। ঈদুল ফিতরের পরেই আমরা কমিটি গঠনের কাজ শেষ করবো।’




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর










x