1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
শুক্রবার, ২২ অক্টোবর ২০২১, ০২:৪৮ অপরাহ্ন

সিলেট-৩ উপনির্বাচনে নবীণের সাথে প্রবীণের লড়াই

  • আপডেট সময় : রবিবার, ১৩ জুন, ২০২১
  • ৩৫৬ বার পঠিত

সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে, নির্বাচনী রূপরেখা ততই জটিল হচ্ছে। বিশেষ করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিবের সাথে জাপা প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিকের নির্বাচনী হিসাব যত সহজে মেলানোর কথা ছিল, সাবেক সাংসদ শফি চৌধুরীর নির্বাচনে অংশগ্রহনের খবরে পুরো নির্বাচনী হিসেবে নতুন মোড় নিয়েছে। বয়সে প্রবীণ শফি চৌধুরী ও আতিকের সাথে তরুন আওয়ামীলীগ নেতা হাবিবের লড়াই যেন নবীণের সাথে প্রবীণের ভোট যুদ্ধ বলে ভোটারা মনে করছেন।
দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ উপজেলা নিয়ে সিলেট-৩ আসন গঠিত। এই আসনের সংসদ সদস্য মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েস ১১ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় কয়েক দফা পিছিয়ে ২৮ জুলাই এই আসনের উপনির্বাচনের ভোট গ্রহণের তারিখ ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।
এ আসনে আ’লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের তালিকায় ২৫জনের নাম ছিল। গত ১২ জুন আওয়ামীলীগের পার্লামেন্টারী বোর্ডের সভায় হাবিবুর রহমান হাবিবকে দলীয় মনোনয়ন প্রদান করা হয়। তার মনোনয়ন প্রাপ্তির খবরে অন্যান্য মনোনয়ন প্রত্যাশীরা কিছু বির্মষ হলেও দলীয় তরুণরা আনন্দে উৎফুল্ল হয়ে উঠেছে। হাবিবুর রহমান হাবিব এর আগে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। তবে দীর্ঘদিন ধরেই তিনি দেশে রাজনীতিতে সক্রিয় রয়েছেন। সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সর্বশেষ কমিটিতে সদস্য করা হয় হাবিবকে। এর আগে ২০১৪ ও ২০১৯ সালের নির্বাচনেও সিলেট-৩ আসনে দলীয় মনোনয়ন চান হাবিব।
এরমধ্যে এই উপনির্বাচনে অংশ না নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। তবে সংসদের প্রধান বিরোধী দল জাতীয় পার্টি নির্বাচনে অংশ নিচ্ছে। প্রেসিডিয়াম সদস্য আতিকুর রহমান আতিককে এই আসনে মনোনয়ন দিয়েছে দলটি।
আতিকুর রহমান আতিক ১৯৮৪ সাল থেকে সিলেট-৩ আসনের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ সংসদীয় এলাকার জনগণের সেবায় নিয়োজিত আছেন। এলাকার মসজিদ, মাদ্রাসা, এতিমখানা, বিভিন্ন ধর্ম প্রতিষ্ঠানসহ স্কুল, কলেজ, রাস্তাঘাট, খেলাধুলা সহ বিভিন্ন উন্নয়ন মূলক কাজে জনগণের সেবক হিসাবে কাজ করে যাচ্ছেন। “করোনা মহামারি দুর্যোগের” শুরু থেকে তিনি সিলেট-৩ আসনের কয়েক হাজার পরিবারে খাদ্য সামগ্র বিতরণ করেছেন। শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন। পুরো রমজান মাস আতিকের পক্ষে জাপার নেতাকর্মীরা বিভিন্ন সহায়তা নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে ছিলেন। আতিকুর রহমান আতিকও ব্যাপক ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করেছেন পুরো নির্বাচনী এলাকায় প্রশংসা লাভ করেছেন।
১৩ জুলাই রবিবার জাপা প্রার্থী আতিকুর রহমান আতিক মনোনয়ন লাভের পর সিলেটে এসে দলীয় নেতাকর্মী নিয়ে পুরো নির্বাচনী এলাকা জুড়ে শোডাউন করে প্রার্থীতার জানান দিচ্ছেন।

বিএনপি দলগতভাবে নির্বাচনে অংশ না নিলেও ইতিমধ্যে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়েছেন দলটির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব শফি আহমদ চৌধুরী। যুক্তরাষ্ট্র থেকে ফিরে ১৫ জুন মঙ্গলবার তিনি মনোনয়নপত্র জমা দিবেন বলে জানিয়েছেন তার প্রেস সচিব রাজু আহমেদ।
রাজু আহমেদ জানান, শফি আহমদ চৌধুরী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নেবেন। এজন্য তিনি যুক্তরাষ্ট্র থেকে দেশে ফিরছেন। সোমবার তিনি ঢাকায় পৌঁছাবেন। পরদিন সিলেট এসে মনোনয়নপত্র দাখিল করবেন। তার পক্ষ থেকে মনোনয়নপত্র উত্তোলন করে তা পূরণ করে জমার দেয়ার জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে বলে জানান রাজু।
চিকিৎসার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থান করছিলেন শফি আহমদ চৌধুরী। এই অবস্থায় নির্বাচনের তফশিল ঘোষণা হলে তিনি নির্বাচনে অংশ নেয়ার ইচ্ছা পোষন করেন। তাঁর দল বিএনপি নির্বাচন বর্জন করলেও তিনি তার অনুসারী ও শুভাকাঙ্খিদের স্বতন্ত্র হিসেবে নিজে প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি জানান। নির্বাচনে তার অংশগ্রহনের খবরে পুরো উপনির্বাচনের নির্বাচনী হিসাব নিকাশে নতুন মোড় নিয়েছে।
শফি আহমদ চৌধুরী ২০০১ সালে বিএনপির দলীয় প্রার্থী হিসেবে সিলেট-৩ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এরপর ২০০৮ ও ২০১৮ সালের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে আওয়ামী লীগের প্রার্থী মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী কয়েসের কাছে পরাজিত হন। দক্ষিণ সুরমার একটি ঐতিহ্যবাহী পরিবারের সন্তান এবং দেশ বরণ্যে শিল্পপতি শফি চৌধুরীর দীর্ঘ দিনের রাজনৈতিক ও সামাজিক অভিজ্ঞতার কাছে বয়সে নবীণ নৌকার প্রার্থী হাবিব কতটুকু সুবিধা করতে পারবেন এ নিয়ে জনমনে আলোচনার শেষ নেই। অপরদিকে জাপার প্রার্থী আতিক ১৯৯১সাল থেকে বিভিন্ন ঘাতপ্রতিঘাত অতিক্রম করে পুনঃরায় সিলেট-৩ আসনে নির্বাচনে অংশগ্রহন দলীয় নেতৃবৃন্দ মেনে নিলেও ভোটারের কাছে তিনি কতটুকু মূল্যায়িত হবেন তা ভাবনার বিষয়। সাবেক সাংসদ শফি চৌধুরীর কৌশলী অবস্থান, আতিকের দীর্ঘদিনের রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা, নবীণ প্রার্থী হাবিবের নবউদ্দিপনা সবমিলিয়ে এক কঠিন সমীকরণে নির্বাচনী এলাকার জনসাধারণ। চূড়ান্ত ফলাফলের জন্য নির্বাচনী এলাকার ভোটারা আগামী ২৬ জুলাই পর্যন্ত অপেক্ষায় থাকবেন। তবে জনকল্যাণমূখী ও উন্নয়ন কাজে সদাতৎপর প্রার্থী যেন ভোটারা বেছে নেয়, এটাই সুধীমহলের প্রত্যাশা।
উল্লেখ্য, গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা যান মাহমুদ উস সামাদ চৌধুরী এমপি। তাঁর মৃত্যুতে আসনটি শূণ্য ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। আগামী ২৮ জুলাই আসনটিতে উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।
নির্বাচন কমিশনের তথ্য অনুযায়ী, সিলেট-৩ আসনে মোট ২ লাখ ৫৫ হাজার ৩০৯ ভোটারের মধ্যে পুরুষ ১ লাখ ২৮ হাজার ৬১৮ এবং নারী ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ২৬ হাজার ৬৯১ জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 sylheter kuj khobor.com
Theme Customized By BreakingNews