1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ০৬:৪৬ অপরাহ্ন

হবিগঞ্জে সাংবাদিককে মারধর, পুলিশে সোপর্দ

  • আপডেট সময় : শুক্রবার, ২৫ জুন, ২০২১
  • ১৬৯ বার পঠিত

হবিগঞ্জের বাহুবলে করাঙ্গী নদীর সেতুর ও সড়ক মেরামতের কাজে অনিয়মের সংবাদ সংগ্রহ করতে যাওয়া সাংবাদিককে হেনস্থা করেছেন উপজেলা প্রকৌশলী ও ঠিকাদার। পরে ওই সাংবাদিককে আটক করে থানায় সোপর্দ করে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন তারা। ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১টার দিকে করাঙ্গী সেতুর পাশে।

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবত সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়া থেকে বঞ্চিত ঐতিহ্যবাহী বাহুবল বাজারের প্রধান সড়ক ও করাঙ্গী নদীর সেতু। রাস্তা ও সেতু মেরামত ও সংস্কারের দাবিতে এলাকাবাসী মানববন্ধনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছেন। এর প্রেক্ষিতে সম্প্রতি করাঙ্গী নদীর ঝুঁকিপূর্ণ সেতু ও রাস্তা মেরামতের জন্য প্রায় ৪ লাখ টাকা বরাদ্দ দেয় সরকার। গত কয়েকদিন ধরে মেরামত কাজ করছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। তবে প্রায়ই রাতের আঁধারে কাজ করার ফলে জনসাধারণের মাঝে বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন দেখা দেয়। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে সেতুর উপরে পাকাকরণের কাজ চলা অবস্থায় সংবাদ সংগ্রহ ও ছবি তুলতে যান স্থানীয় সাংবাদিক আজিজুল হক সানু। এ সময় তিনি নির্মাণ কাজে নিম্নমানের বালু ও বিটুমিনসহ অন্যান্য নির্মাণসামগ্রীর ছবি তোলেন। এতে ক্ষুব্ধ হন উপজেলা প্রকৌশলী ও তার অফিসের লোকজন। একপর্যায়ে সাংবাদিক সানুর সঙ্গে হাতাহাতিতে লিপ্ত হন তারা। এ অবস্থায় উপজেলা প্রকৌশলীর নির্দেশে অফিসের লোকজন সানুকে আটক করে বাহুবল মডেল থানায় নিয়ে যায়। আজিজুল হক সানু থানায় আটক থাকা অবস্থায় তার বিরুদ্ধে সরকারি কাজে বাধা প্রদান ও উপ-সহকারী প্রকৌশলীকে মারধরের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করা হয়।

এ ব্যাপারে বাহুবল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান বলেন, সরকারি কাজে বাধা ও মারধরের অভিযোগ এনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ওই মামলায় তাকে আদালতের মাধ্যমে করাগারে পাঠানো হয়েছে।

উপজেলা প্রকৌশলী মো. আফছার হোসেন খন্দকার বলেন, ওই ব্যক্তি আমাদের নির্মাণ কাজ চলাকালীন সময়ে বাধা প্রদান করেন এবং উপ-সহকারী প্রকৌশলী মো. আলফাজ উদ্দিন এবং ফিল্ড সুপারভাইজার ইখতিয়ার উদ্দিনকে মারধর করেন। পরে বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে অবগত করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল বাছির বলেন, স্থানীয় একজন সাংবাদিকের সঙ্গে কথা কাটাকাটির বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে মামলা দায়ের বা অন্যান্য বিষয়ে আমি অবগত নই।

এদিকে এমন ঘটনায় বাহুবলসহ হবিগঞ্জ জেলায় কর্মরত সাংবাদিকদের মধ্যে বিরূপ প্রতিক্রিয়া ও ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। তারা অবিলম্বে মামলা প্রত্যাহার করে সাংবাদিক আজিজুল হক সানুর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন। একই সঙ্গে তারা উপজেলা প্রকৌশলীসহ এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2021 sylheter kuj khobor.com
Theme Customized By BreakingNews