1. admin@sylheterkujkhobor.com : admin :
শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০২:২৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ঢাকায় শুক্রবার দুইজন নিহত: ডিএমপি কোটা আন্দোলন সরকার বিরোধী : দ্বায়িত্ব ছাড়লেন সিলেটের সমন্বয়ক ফুটবল বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ট্রফির রাজা এখন মেসি দক্ষিণ সুরমা মোগলাবাজারে বিদ্যুৎ পৃষ্ট হয়ে ইলেকট্রিক মিস্ত্রির মৃ ত্যু হাওরে গোসল করতে গিয়ে শাশুড়ি ও অন্তঃসত্ত্বা পুত্রবধূর মৃত্যু লন্ডনে বসে মামলার হাজিরা দেন সিলেট কোর্টে খলিলের ফাঁস করা প্রশ্নে ৩ বিসিএস ক্যাডার, আতঙ্কে অন্যরাও বেরিয়ে আসছে থলের বিড়াল ব্যারিস্টার সুমনকে হত্যা নয় ফাঁদে ফেলে টাকা আদায় করতে চেয়েছিলেন সোহাগ ব্যারিস্টার সুমনকে ‘হ ত্যা র পরিকল্পনা’ : একজন পুলিশের জালে সিলেটে আগামী ৩ দিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা- আবহাওয়া অধিদপ্তর

দক্ষিণ সুরমায় চাঞ্চল্যকর হাসান হত্যাকাণ্ডের রহস্য ২৪ ঘন্টায় উদঘাটন আটক ৪

সিলেটের খোঁজখবর
  • আপডেট সময় : সোমবার, ৫ জুন, ২০২৩
  • ৩৬৬ বার পঠিত

জাবেদ এমরান : সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় চাঞ্চল্যকর হাসান মিয়া (১৫) হত্যাকাণ্ডের রহস্য ২৪ ঘন্টায় উদঘাটন করেছে থানা পুলিশের একটি টিম। হত্যাকাণ্ডে সম্পৃক্ত চার জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

তারা হলেন, সিলেট জালালাবাদ থানার কান্দিগাঁও ইউনিয়নের পশ্চিম দর্শা গ্রামের সিরাজ মিয়ার ছেলে তারেক মিয়া (২১), দক্ষিণ সুরমান থানার কামালবাজার ইউনিয়নের গুপ্তের গাঁও গ্রামের লাল মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া (২০), হবিগঞ্জের লাখাই থানার কামড়াপুর গ্রামের জহির মিয়ার ছেলে বর্তমান কামারবাজারের লালপুর গ্রামের ফারুক মিয়ার কলোনীতে বসবাসকারী পাবেল মিয়া (১৯) ও হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জের শিবপাশা গ্রামের মৃত রাজধর মিয়ার ছেলে বর্তমান মোগলাবাজার থানার গোটাটিকর এলাকার ভালু মিয়ার ভাড়াটিয়া রিপলু মিয়া।

উদ্ধার করা হয় একটি নরমাল মোবাইল, হাসানের ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা বিক্রয়ের নয় হাজার পাঁচশত টাকা, মোবাইল, অটোরিকশার নানা যন্ত্রাংশ ও জামাকাপড়।

সোমবার (০৫ জুন) নগরীর রিকাবীবাজারস্থ সিলেট পুলিশ লাইনস কনফারেন্স হলে প্রেস ব্রিফিং এর মাধ্যমে বিষয়টি গণমাধ্যমকে জানায় সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশ।

পুলিশ জানায়, গত ২ জুন বিকেলে দক্ষিণ সুরমা থানার ডিউটি অফিসারের মোবাইলে একটি ফোনকলে জানানো হয় ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের পূর্ব পাশে তেঁতলী এলাকায় পরিত্যক্ত একটি বিল্ডিং এর ভিতরে ধানের খড় দিয়ে ঢাকা অবস্থায় একটি অর্ধগলিত লাশ পড়ে আছে। সংবাদ পেয়ে অফিসার ইনচার্জ সহ থানা পুলিশ ও পিবিআই লাশের পরিচয় সনাকের চেষ্টা চালায়। লাশটি পুরোপুরি পঁচে যাওয়ায় মৃত ব্যক্তির কঙ্কাল দেখে পরিচয় সনাক্ত করা তখন সম্ভব হয়নি। লাশের সাথে থাকা পায়ের স্যান্ডেল, পরিধেয় গেঞ্জি, জিন্সের প্যান্ট এবং গলায় পেঁচানো কাপড়ের বেল্ট দেখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে খবর পেয়ে মৃতের বৃদ্ধ বাবা মাসুক মিয়া ছেলে হাসান মিয়ার লাশ শনাক্ত করেন।
এদিকে, হাসান নিখোঁজ হওয়ার ঘটনায় গত ২৬মে হাসানের মামা কলিম উদ্দিন দক্ষিণ সুরমা থানায় একটি সাধারণ ডায়রি করেন। ডায়রির সূত্রধরে মৃত হাসান মিয়ার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন সহ হাসান মিয়াকে উদ্ধারে তথ্য প্রযুক্তির সহায়তা নেয় পুলিশ।

বিভিন্ন আলামত যাচাই বাছাই করে ও প্রযুক্তির সহায়তায় নিশ্চিত হয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ), অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ-অপরাধ), সহকারী পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ সুরমা থানা) নির্দেশে ও তত্ত্বাবধানে দক্ষিণ সুরমা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. শামসুদ্দোহা পিপিএম এর নেতৃত্বে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) আবুল হোসেন, এসআই শাহিন কবির, খায়রুল বাশার, আলম ও ফোর্স সহ কয়েকটি দলে বিভক্ত হয়ে হাসান মিয়া হত্যাকান্ডে জড়িতদের গ্রেফতারে অভিযান চালায়।

সিলেট জেলা ও এসএমপির বিভিন্ন থানা এলাকা সহ গাজীপুর, ময়মনসিংহ এবং চট্টগ্রামে একটানা অভিযান পরিচালনা করে মামলায় সরাসরি জড়িত মূল আসামীদের অবস্থান সনাক করে। চট্রগ্রামের বায়জিদ বোস্তামি থানা এলাকা থেকে ৪ জুন সকালে তারেক ও রুবেলকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় মৃতের ব্যবহৃত মোবাইল, অটোরিকশা বিক্রির নয় হাজার পাঁচশত টাকা। সিলেটের দক্ষিণ সুরমার কামালবাজার লালপুর এলাকা থেকে রুবেলকে আটক করে পুলিশ। ধৃত ৩ আসামী ঘটনার সাথে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা উল্লেখ করে লোমহর্ষক হত্যাকাণ্ডের বর্ণনা দেয়।

পুলিশ আরো বলে, আসামী তারেক, রুবেল ও পাবেল তাদের বন্ধুদের নিয়ে ভাসমান পতিতার সাথে মনোরঞ্জন শেষে পতিতাকে নির্দিষ্ট স্থানে পৌঁছে দেওয়ার জন্য অটোরিকশার প্রয়োজন হয়। অটোরিকশার জন্য গত ২৫মে রাত ৩টা দিকে পাবেল ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা ভাড়া নেওয়ার জন্য হাসানকে বললে হাসান অপারগতা প্রকাশ করে। কথা না শোনার আক্রোশে পূর্ব পরিকল্পনামতে সন্ধ্যা ৭টায় কৌশলে রুবেল হাসানকে ডেকে নিয়ে তারেক, পাবেল ও রুবেল হাসানের মুখ চেপে ধরে মেঝেতে ফেলে দেয়। তারেক হাসানের দুই হাত এবং রুবেল দুই পা ধরে রাখে। ততক্ষণে পাবেল এক হাত দিয়ে হাসানের মুখ চেপে ধরে অন্য হাত দিয়ে গলায় শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। মৃত্যু নিশ্চিত করার জন্য অটোরিকশায় থাকা কাপড়ের টুকরা দিয়ে হাত পা বেঁধে মৃত হাসানের পরিহিত প্যান্টের কাপড়ের বেল্ট দ্বারা পাবেল হাসানে গলায় পেঁচিয়ে মৃত্যু নিশ্চিত করে। পরে পাশে থাকা খড়ের গাদা থেকে খড় নিয়ে মৃতদেহ ঢেকে রাখে।

পরে অটোরিকশা নিয়ে মোগলাবাজার থানার গোটাটিকর এলাকায় ভাঙ্গারি দোকানে ত্রিশ হাজার টাকায় বিক্রি করা হয়। তারা নিজেদের মধ্যে দশ হাজার টাকা করে ভাগ করে নেয়। রুবেল ও তারেক মৃত হাসানের ব্যবহৃত মোবাইল ফোন ও ভাগের প্রাপ্ত টাকা নিয়ে সিলেট রেলস্টেশন হয়ে ঢাকা, ময়মনসিংহ, গাজীপুর ও সর্বশেষ চট্রগ্রামের বায়োজিদ বোস্তামি থানাধীন বার্মা কলোনীতে আত্মগোপন করে। একপর্যায়ে সিএমপি কোতয়ালী থানা এলাকায় ভাসমান হকারের নিকট মোবাইলটি বিক্রয় করে। হকার ভ্যানচালক সুমনের কাছ থেকে মোবাইলটি উদ্ধার করা হয়।
আসামীদের স্বীকারোক্তিতে গোটাটিকর এলাকার মেসার্স মায়ের দোয়া এন্টারপ্রাইজ নামাক ভাঙ্গারী দোকান মালিক রিপলু মিয়াকে গ্রেফতার করা হয়। দোকান থেকে উদ্ধার করা হয় অটোরিকশার নানা যন্ত্রাংশ। হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি উল্লেখ করে মৃত হাসানের পিতা দক্ষিণ সুরমা থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।
চাঞ্চল্যকর ও ক্লু-লেস হত্যা মামলার রহস্য উদ্ঘাটনের বিষয়টি জানানোর সময় প্রেস ব্রিফিং এ উপস্থিত ছিলেন সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম এন্ড অপস্) জনাব মুঃ মাসুদ রানা, অতিরিক্ত উপ পুলিশ কমিশনার (অপরাধ, দক্ষিণ) তাহমিদুল ইসলাম, দক্ষিণের ডিসি মোহাঃ সোহেল রেজা পিপিএম, দক্ষিণ সুরমা থানার অফিসার ইনচার্জ শামসুদ্দোহা সহ সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও সিলেটের বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকবৃন্দ।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরও খবর










x